ভুকা’ হালে দাঁড়িয়ে ভুখা মানুষের স্বার্থ কি অলীক কল্পনা!

গতকাল রাত্রে ইনস্টিটিউট থেকে ফেরার পথে আমার সাপ্তাহিক বাজারের সময়, বাঁধা মাছওয়ালাকে জিজ্ঞেস করলাম— অলীক, বাজেট তো আসছে। জানো? (মাছওয়ালার নাম অলীক জেনে ভারি পুলকিত হয়েছিলাম, পরে বানান করতে বলায় অবশ্য জেনেছিলাম আমার শোনার ভুল হয়েছে, কিন্তু অলীক মাছওয়ালা পাওয়ার রোম্যান্টিকতা আমাকে নামটা ত্যাগ করতে দেয় না কিছুতেই)

অলীক বলল, হ্যাঁ জানি তো। দেখা যাক কী হয়।

—কী চাইছ তুমি বাজেট থেকে?

—আমি কী চাইব দাদা, বলে অলীক, আমি চাই পাবলিকের ভাল হোক। পাবলিকের ভাল হলে আমারও তো ভাল। আর খারাপ হলে আমার আরও খারাপ। জানেন তো আমাদের অবস্থা।

ভারী অনাবিল উত্তর। সবার ভাল হলে আমার ভাল। সবার খারাপ হলে আমার আরও খারাপ।

কিন্তু তাই কি হয় আসলে! ইনকাম ট্যাক্স কমলে উচ্চ মধ্যবিত্তের যা সুবিধে, অলীক মাছওয়ালার কি সেই সুবিধে হবে? ভারতে ইনকাম ট্যাক্স দেনই তো মোট সাড়ে আট কোটির মতো মানুষ, বয়ঃপ্রাপ্ত এবং উপার্জন-সক্ষম জনসংখ্যার যা ১০ শতাংশের কাছাকাছি (তথ্য: উইকিপিডিয়া)। বাকি ৯০ শতাংশ হয় ট্যাক্স দেন না, বা ট্যাক্স দিতে তাঁদের হয় না, কারণ তাঁদের মোট আয় ট্যাক্সের আওতায় পড়ে না। এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্কের ২০১৭-র তথ্য অনুযায়ী ভারতের প্রায় ২২ শতাংশ মানুষ এখনও দারিদ্রসীমার নীচে। তাঁদের ক্ষেত্রে ইনকাম ট্যাক্সের প্রশ্নই তো উঠে না!

কিন্তু আরও খারাপ কেন বলল অলীক? উত্তর সহজ— দারিদ্রসীমার নীচে সে না থাকলেও, খুব বেশি উপরেও নেই। অর্থনীতিতে ঝড় এলে, প্রথমে ভেঙে পড়ে তাদের ঘর। সত্যি বলতে কি ভারতের এক এবং একমাত্র লক্ষ্য হওয়া উচিত এই মানুষগুলিকে দারিদ্রের গভীর খাদ থেকে টেনে তুলে আনা। সেই লক্ষ্য-পূরণের জন্য রাষ্ট্রের সদিচ্ছা, পরিকল্পনা ও প্রস্তুতি বোঝা যায় বাজেট থেকে।

৯০-এর দশকে অর্থনীতির দ্বার খোলে। খোলা হাওয়ার প্রকৃত ফল হয়তো আমরা দেখতে পাই পরের দশকে, যখন ২০০৬ থেকে ১৬-র মধ্যে প্রায় ২৭ কোটি মানুষ দারিদ্রসীমার বাইরে চলে আসেন। এখন কিন্তু অবস্থা আরও জটিল। উদারনীতি ও বিশ্বায়নের টুইন ইঞ্জিনবাহী বাহনে চড়ে ভারতের মধ্যবিত্ত সাঁ সাঁ করে ভাল থাকার রাস্তায় এগিয়ে চলেছেন। অথচ দেশের একটা বড় অংশের কাছে বিদ্যুৎ আসেনি ঠিকঠাক (গ্রাম দিয়ে একখানা বিদ্যুদ্বাহী তার চলে যাওয়া মোটেই সেই গ্রামের সবার বাড়িতে বিদ্যুৎ আসা নয়)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close