ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তৃতীয় জন

চিনে মহামারির আকার ধারণ করতে চলেছে করোনাভাইরাস। আর ভারতেও তার প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। সোমবার কেরলে আরও এক আক্রান্তের হদিশ মিলল। তার জেরে এই মুহূর্তে ভারতে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যায় গিয়ে ঠেকল তিনে। এই তিন আক্রান্তই কেরলের বাসিন্দা। করোনাভাইরাসের আঁতুরঘর উহান থেকে সম্প্রতি দেশে ফিরেছিলেন তাঁরা।

এ দিন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, ‘‘কেরলে তৃতীয় করোনাভাইরাস আক্রান্তের খবর মিলেছে। আক্রান্ত চিনের উহান থেকে ফিরেছেন। ওঁর শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। হাসপাতালে পৃথক ভাবেই রাখা হয়েছে ওঁকে। রোগীর অবস্থা স্থিতিশীল। ওঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।’’

আক্রান্তকে এই মুহূর্তে কাসারগডের কাঞ্চনগড় জেলা হাসপাসাতালে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী কেকে শৈলজা। তবে আক্রান্তরা এক রাজ্য থেকে হলেও, তিনটি ঘটনাই আলাদা আলাদা জায়গায় ধরা পড়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। চার দিন আগে প্রথম ঘটনাটি সামনে এসেছিল মধ্য কেরলের ত্রিশূর থেকে। আলাপ্পুঝা থেকে রবিবার দ্বিতীয় ঘটনাটি সামনে আসে। এ দিন তৃতীয় ঘটনাটি সামনে এল  কাসারগড থেকে। এই মুহূর্তে কেরলের বিভিন্ন প্রান্তে ১৭০০-রও বেশি মানুষকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে ৭০ জনকে। প্রথম যে ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছিলেন, তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানা গিয়েছে। চিন থেকে ফেরত আসা সমস্ত মানুষকে স্বাস্থ্য দফতরে রিপোর্ট করতে বলা হয়েছে। এমনকি ১ জানুয়ারির পর চিন গিয়েছেন, এমন ব্যক্তিদের স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে রিপোর্ট করতে নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর। জ্বর, কাশি এবং শ্বাসকষ্টের মতো উপসর্গ দেখা দিলে সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসা কেন্দ্রে যেতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close