বামেদের অন্তর্দ্বন্দ্ব,সীতারাম ইয়েচুরির রাজ্যসভার মনোনয়ন খারিজ পলিট ব্যুরোয়

     

ফের প্রকট বামেদের অন্তর্দ্বন্দ্ব। সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক হয়েও রাজ্য সভায় মনোনয়নের অনুমতি পেলেন না সীতারাম ইয়েচুরি। পলিট ব্যুরোর বৈঠকে বাতিল করা হল পশ্চিমবঙ্গ থেকে তাঁকে রাজ্যসভায় মনোনয়ন দেওয়ার প্রস্তাব। সূত্রের খবর পলিট ব্যুরোর কেরল লবির দাপটেই নাকি খারিজ হয়ে গিয়েছে ইয়েচুরিকে প্রার্থী করার প্রস্তাব।

ইয়েচুরির রাজ্যসভার মনোনয়ন খারিজ দিল্লিতে ৬ ফেব্রুয়ারি বসেছিল পলিট ব্যুরোর বৈঠক। সেখানেই খারিজ হয় যায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে সীতারাম ইয়েচুরিকে মনোনয়ন দেওয়ার প্রস্তাব। তাঁকে রাজ্যসভায় প্রার্থী করার সমর্থন দিতে চেয়েছিল প্রদেশ কংগ্রেস । তাতেই নাকি প্রবল আপত্তি পলিট ব্যুরোর। কংগ্রেসের সমর্থন নিয়ে সিপিএম প্রার্থীর মনোনয়ন হবে না জানিয়ে খারিজ করে দেওয়া হয় প্রস্তাব। যদিও এটা প্রথমবার নয় এই নিয়ে দ্বিতীয়বার সীতারাম ইয়েচুরির রাজ্যসভার মনোনয়ন খারিজ করল দল।

পার্টির নিয়ম মেনেই সিদ্ধান্ত যদিও এই সিদ্ধান্ত দল পার্টির নিয়ম মেনে নিয়েছে সিপিএমের এক শীর্ষ নেতা। পার্টির নিয়ম অনুযায়ী নাকি সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক রাজ্যসভার প্রার্থী হতে পারেন না। এবং একই নেতাকে দুবারের বেশি দল রাজ্যসভায় মনোনয়ন দেয় না বলেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিপিএমের ওই শীর্ষ নেতা। এর আেগ ২০০৫ এবং ২০১৭ সালে রাজ্যসভায় মনোনয়ন পেেয়ছিলেন সীতারাম ইয়েচুরি। ২০১৭ সালের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেই কংগ্রেস তাঁকে রাজ্যসভার মনোনয়ন দেওয়ার জন্য সমর্থন জানিয়েছিল। কিন্তু পার্টি তাতে রাজি হয়নি।

প্রকট অন্তর্দ্বন্দ্ব কারাট বনাম ইয়েচুরি শিবিরের যে দ্বন্দ্ব পলিটব্যুরোয় রয়েছে এ নতুন কথা নয়। পশ্চিমবঙ্গে বাম সরকারের পতনের পর থেকে কারাট শিবিরের দাপট কমতে শুরু করেছিল পলিট ব্যুরোয়। কারাটদের রক্ষণশীল মানসিকতাই বঙ্গে সিপিএমের কারণ হয়ে উঠেছিল বলে মনে করতে শুরু করে বঙ্গ ব্রিগেড সেই থেকেই ইয়েচুরির প্রাধান্য বাড়তে শুরু করে পলিট ব্যুরোয়। তারপরেই কারাটকে সরিয়ে সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন সীতারাম ইয়েচুরি। এখনও পর্যন্ত পার্টির অন্যতম সফল নেতা সীতারাম ইয়েচুরি। কিন্তু কেরল লবির কাছে অতটা জনপ্রিয় নন তিনি। সেকারণেই তাঁর রাজ্যসভার মনোনয়কে কোপ বলে মনে করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close