দ্বিতীয় ম্যাচ হেরে ওডিআই সিরিজ হাতছাড়া ভারতের

দ্বিতীয় ওডিআইও ভারতের ভাল গেল না। এ দিন হতাশ করলেন ভারতের ব্যাটসম্যানরা। একমাত্র শ্রেয়াস আয়ার। প্রথম ম্যাচে সেঞ্চুরির পর এ দিন সাফ সেঞ্চুরি করলেন। বাকি আর কেউই দাঁড়াতে পারলেন না। নবাগত দুই ওপেনার প্রথম ম্যাচে যাও খেলতে পেরেছিলেন এ দিন পুরোপুরিই ব্যর্থ। পৃথ্বী শ ২৪ ও মায়াঙ্ক আগরওয়াল ৩ রান করে আউট হয়ে গেলেন।তিন নম্বরে নামা বিরাট কোহলির রান ২৫ বলে ১৫। এই অবস্থায় নেমে কিছুটা চেষ্টা করলেন শ্রেয়াস আয়ার। কিন্তু উল্টোদিকে তেমন কোনও সমর্থন তিনি পেলেন না। প্রথম ম্যাচে দুরন্ত খেলা লোকেশ রাহুল এ দিন মাত্র ৪ রান করে ফিরে গেলেন প্যাভেলিয়নে। ভারত হারল ২২ রানে। সঙ্গে হাতছাড়া ওডিআই সিরিজ।

কেদার যাদবও ফিরলেন ৯ রানে। শ্রেয়াস আয়ার ৫৭ বলে ৫২ রান করে আউট হলেন। এর পর কিছুটা হাল ধরেন রবীন্দ্র জাডেজা ও শার্দূল ঠাকুর। শার্দূল আউট হন ১৮ রান করে। এর পর নভদীপ সাইনি ঝোড়ো ইনিংস খেলে ৪৫ রান করে ফিরে যান। ১০ রানে ফেরেন যুজবেন্দ্র চাহাল। দুরন্ত লড়াই করে শেষবেলায় ৫৫ রান করে আউট হন জাডেজা। ভারতের বোলাররা এদিন নিউজিল্যান্ডকে ১৭৩ রানে আটকে দিতে পেরেছিলেন। কিন্তু ব্যাটসম্যানরা তার সঙ্গে কতটা ন্যায় করতে পারল সেটাই প্রশ্ন।

\দ্বিতীয় ওডিআই ভারতের সামনে মাস্ট উইন। আর তার শুরুটা টস জিতেই হয়ে গেল অকল্যান্ডের ইডেন পার্কে। টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিলেন Virat Kohli। ভারতীয় দলে দুটো পরিবর্তন করা হয়েছে, টেস্ট ক্রিকেটের কথা মাথায় রেখে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে মহম্মদ শামিকে তাঁর জায়গায় দলে এসেছেন নভদীপ সইনি। অন্যদিকে কুলদীপ যাদবের জায়গায় দলে এসেছেন যুজবেন্দ্র চাহাল। নিউজিল্যান্ড দলে এই ম্যাচে অভিষেক হয়েছে কেইল জেমিশনের। সেই ইঙ্গিত আগের দিনই জানিয়ে দিয়েছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। ইশ সোধিকে বসতে হয়েছে বাইরে। টস হেরে কিন্তু শুরুটা ভালই করে দিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। থামল ৫০ ওভারে ২৭৩-৮-এ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close