আগামী বছর মহালয়ার ৩৫ দিন পরে দুর্গাপুজো, ভাবুন একবার

শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজোর (Durgapuja) আনন্দে এখন মাতোয়ারা শহর কলকাতা তথা গোটা রাজ্য এমনকি সমগ্র দেশও। বছরভর প্রতীক্ষার পরে মা আবার এসেছেন, ঘরে ঘরে তাই খুশির জোয়ার। আজ (শুক্রবার) ষষ্ঠী, মায়ের বোধন। এরপর সপ্তমী থেকে দশমীর আনন্দ দু’হাত ভরে লুটেপুটে নিতে চান বাঙালিরা, প্রতিমা দর্শন আর খাওয়া দাওয়ায় এখন তাই মশগুল আট থেকে আশি, সব্বাই। তবে কলকাতার বিখ্যাত (Kolkata’s Durgapuja 2019) পান্ডেলগুলিতে তো চতুর্থী থেকেই জনজোয়ার। ষষ্ঠী, সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী এবং দশমীতে যে সেখানে জনপ্লাবন দেখা দেবে তা আশাই করা যায়। সব গৃহস্থই চাইছেন মায়ের বাপের বাড়ি আগমনের এই কটা দিন পুরোদস্তুর উপভোগ করতে। তবে আনন্দ শুরু হতে হতেই সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মায়ের বিদায়ের ক্ষণও ঘনিয়ে আসে। আসলে আসা আর যাওয়া তো প্রকৃতিরই নিয়ম। উঁহু, ভাববেন না যেন, বোধনের দিনেই (Durgapuja 2019) বিসর্জনের বাজনা বাজাচ্ছি। বরং আপানাদের জানিয়ে রাখি, আগামী বছর মা কবে আসছেন তাঁর বাপের বাড়িতে। আজ থেকেই শুরু করে দিন, তার কাউন্ট ডাউনও।আগামী বছর (দুর্গাপুজো ২০২০) মহালয়া পড়েছে ১৭ সেপ্টেম্বর। কিন্তু আপনি যদি ভেবে থাকেন যে সামনের বছর দেবী দুর্গা তাড়াতাড়ি আসছেন মর্ত্যে, তাহলে সে গুড়ে বালি। আগামী বছর আশ্বিনে নয়, মা আসছেন কার্তিকে। হ্যাঁ, একদম ঠিকই পড়েছেন। আগামী বছর মহালয়া ১৭ সেপ্টেম্বর হলেও দেবী দুর্গার বোধন অর্থাৎ ষষ্ঠী পড়েছে তার ৩৫ দিন পরে, অর্থাৎ আশ্বিন পেরিয়ে কার্তিক মাসে। আসলে আগামী বছর দুটো অমবস্যা একমাসে পড়ায় আশ্বিন মাস মল মাস। ফলে পুজো পিছিয়ে কার্তিক মাসে চলে গেছে। সামনের বছর মহালয়া ১৭ সেপ্টেম্বর হলেও, ষষ্ঠী পড়েছে ২২ অক্টোবর। বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত এবং গুপ্ত প্রেস, দুই পঞ্জিকা মতেই এটা ঘটতে চলেছে। আপনি ভাবছেন, এমন কথা আগে কখনও শোনেন নি! না না, আপনাকে জানিয়ে রাখি, ঠিক এমন ঘটনাই ঘটেছিল ২০০১ সালেও। সুতরাং, মায়ের আগমনীবার্তা বেজে যাওয়ার পরেও মায়ের মর্ত্যে আগমনে দেরির ঘটনা এই প্রথম নয়। তবে ওই যে বলে না, ঘরের মেয়ের জন্যে বছর ভরের প্রতীক্ষা কখনো শেষ হয় নাকি? তাই আগামী বছর না হয় ধৈর্য্য ধরে কটা দিন অপেক্ষাই করলেন দেবী দুর্গার আগমনের পথের দিকে তাকিয়ে…। তবে এসব ভেবে এবারের পুজোর আনন্দ কম করবেন না যেন, সবাই খুব আনন্দে করে কাটান এবারের দুর্গাপুজো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

রোহিত-পূজারার হাফ সেঞ্চুরি

Sat Oct 5 , 2019
প্রথম ইনিংসে রোহিত শর্মার সহ্গে লড়াই দিয়েছিলেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল আর দ্বিতীয় সেশনে সেই কজটি করছেন চেতেশ্বর পূজারা। মায়াঙ্ক আগরও।আল দ্রুত আউট হয়ে যাওয়ার পর ভারতের ইনিংসকে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন রোহিত শর্মা ও পূজারা। প্রথম ম্যাচে ১৭৬ রানের ইনিংস খেলার পর দ্বিতীয় ম্যাচেও এখনও পর্যন্ত ১১৫ বলে ৮৪ রান করে ফেলেছেন রোহিত। পূজারার […]

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা

সপ্তাহের সেরা খবর

%d bloggers like this:
Fast Nation

FREE
VIEW